1. admin@dainikamarbiswanath.com : admin :
শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:৩২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
স্পেনের বার্সেলোনায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র স্বাধীনতা দিবস উদযাপন নওধার গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র বিশ্বনাথে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে মাছের পোনা বিতরণ মোঃ রাশেদুল ইসলাম-কে বিবাহত্তোর সংবর্ধনা বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের মাঝে গণস্বাস্থ্যের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ ব্লাড ক্যান্সার আক্রান্ত নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী রাকিব আলী বাঁচতে চায় জগ মার্কা’র নজিরবীরহীন গনজোয়ার ৮০ ভাগ ভোটার মুহিবুর রহমান কে মেয়র চায়। জগ মার্কার প্রার্থী মুহিবুর রহমান এর সমর্থনে নির্বাচনী শেষ জনসভা অনুষ্ঠিত মেয়রপ্রার্থী বিএনপি নেতা শফিক উদ্দিন এর আচরণ বিধি লংঘন বিএনপি নেতা মেয়রপ্রার্থী জালাল উদ্দীন বহিষ্কার গাইবান্ধার মতো নির্বাচনি অনিয়ম নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন মেয়রপ্রার্থী মুহিবুর রহমান বিশ্বনাথ পৌরসভা নির্বাচনে ১,২,৩ নং ওয়ার্ডে অটোরিকশা মার্কা নিয়ে এগিয়ে : নাছিমা বেগম

দালালের মাধ্যমে ইতালি যাত্রা, লিবিয়ায় পুলিশের গুলিতে মৃত্যুর খবর

দৈনিক আমার বিশ্বনাথ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ৪ জানুয়ারি, ২০২২
  • ২২৬ বার পঠিত

সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার আমিনুল ইসলামের স্বপ্ন ইতালি যাওয়ার। সেই স্বপ্ন পূরণে ধরেছিলেন ভুল পথ। দালালের মাধ্যমে ভূমধ্য সাগর পাড়ি দিয়ে ধরেছিলেন ইতালির পথ। ধরা পরে যান লিবিয়াতে। সেখানে জেল থেকে পালাতে গিয়ে পুলিশের গুলিতে আমিনুল মারা যান বলে জানিয়েছেন তার সঙ্গে থাকা একজন।

রবিবার (০২ জানুয়ারি) ওই ব্যক্তি আমিনুলের পরিবারকে এ তথ্য জানান। তার দাবি, আমিনুলকে সেদেশেই দাফন করা হয়েছে।

নিহত আমিনুল উপজেলার খশির আবদুল্লাহপুর এলাকার আলাউদ্দিনের ছেলে। তার মৃত্যুর খবরে ভেঙে পড়েছে পরিবার।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, বছর খানেক আগে ইউরোপ যাওয়ার জন্য দালালের মাধ্যমে লিবিয়ায় পাড়ি জমান আমিনুল ইসলাম। তিন মাস পূর্বে ইতালির উদ্দেশে রওনা হওয়ার সময় আটক হন লিবিয়া পুলিশের হাতে। এরপর থেকে পরিবারের সঙ্গে তার যোগাযোগ হয়নি। রবিবার বিকেলে লিবিয়ায় অবস্থানরত বিয়ানীবাজার উপজেলার চারখাই ইউনিয়নের এক যুবক ফোনে আমিনুলের মৃত্যুর খবর জানান।

ওই ব্যক্তি পরিবারকে জানান, আমিনুল জেল থেকে পালাতে চাইছিলেন। এ সময় পুলিশের গুলিতে সে মারা গেছেন। নিহতের পর আমিনুলকে সেদেশেই দাফন করা হয়েছে।

আমিনুলেন বাবা সিএনজিচালক আলাউদ্দিন বলেন, ‘সহায় সম্বল বিক্রি করে ছেলেকে ইতালি পাঠানো উদ্দেশ্য লিবিয়ায় পাঠিয়েছিলাম। জেলে যাওয়ার আগে প্রায় ফোনে কথা হত। কিন্তু গত তিন মাস থেকে তার কোনো খোঁজ পাচ্ছি না। যে দালালের মাধ্যমে তাকে পাঠিয়ে ছিলাম তার সাথে যোগাযোগ করলে তিনি আমিনুলের কোনো খোঁজ দিতে পারেনি। গত রবিবার আমার পরিবারের ফোনে লিবিয়া থেকে একজন ফোন করে জানায় আমিনুল পুলিশের গুলিতে মারা গেছেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘তবে এখন পর্যন্ত অফিসিয়ালি তার মৃত্যুর খবর পাইনি। আমরা চেষ্টা করছি লিবিয়াস্থ বাংলাদেশি দূতাবাসের মাধ্যমে নিশ্চিত হতে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা