1. admin@dainikamarbiswanath.com : admin :
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৫৬ পূর্বাহ্ন

বাউল জগতের ভাড়ুয়া দালাল শামীম আটক

  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ৩১ মার্চ, ২০২৪
  • ১১০ বার পঠিত

বাউল জগতের ভাড়ুয়া দালাল শামীম আটক

রাসেল রহমান :(সিলেট):

হবিগঞ্জ শহরের উমেদনগরে চ্যানেল আইয়ের গানে সুযোগ করে দেয়ার কথা বলে এক শিল্পীকে ধর্ষণ করে ভিডিও ছড়ানোর অভিযোগে কাফেলার মালিক দেওয়ান শামীম (৪০) কে গ্রেফতার করেছে সদর থানা পুলিশ। এ সময় তার সহযোগী অন্য শিল্পী উমেদনগর গ্রামের মারাজ মিয়ার কন্যা সীমা আক্তার পপি ও রাজনগর এলাকার ইতি সরকার এবং রমিজ আলী পালিয়ে গেছে।

গত শুক্রবার বিকালে সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মুসলেহ উদ্দিনের নির্দেশে এসআই মমিনুল ইসলাম পিপিএমসহ একদল পুলিশ তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে শামীমকে পুটিজুরী ভাই ভাই ফার্নিচারের দোকান থেকে আটক করে। এ সময় তার কাছ থেকে একটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। যাতে বিভিন্ন শিল্পীর সাথে তার অশ্লীল ভিডিও পাওয়া যায়। সে বাহুবল উপজেলার পুটিজুরী ইউনিয়নের চক মন্ডল গ্রামের সিরাজ মিয়ার পুত্র।

এ ঘটনায় নির্যাতিতার মা উমেদনগর গ্রামের সিরাজ মিয়ার স্ত্রী সেলিনা বেগম বাদি হয়ে নারী নির্যাতন ও পণ্যগ্রাফি আইনে সদর থানায় মামলা করেন। এ মামলায় আসামি করা হয় উমেদনগর গ্রামের মারাজ মিয়ার কন্যা বাউল শিল্পী সীমা আক্তার পপি ও রাজনগর এলাকার ভাড়াটিয়া বাবলু মিয়ার কন্যা ইতি সরকার। এ ছাড়াও তাদের অন্যতম সহযোগি একই গ্রামের রমিজ আলী মামলার পর থেকেই পলাতক রয়েছে বলে বাদি সেলিনা জানিয়েছেন।

জানা যায়, সেলিনার কন্যা হবিগঞ্জ উমেদনগর হাই স্কুলের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী (১৫) এর সাথে পরিচয় হয় বাউল শিল্পীদের কাফেলার মালিক দেওয়ান শামীমের সাথে। সে ওই ছাত্রীর ওপর কুনজর দেয়। সে চ্যানেল আইয়ে গানের সুযোগ করে দেয়ার কথা বলে ওই ছাত্রীকে রাজনগর এলাকার বাবলু মিয়ার ভাড়াটিয়া বাসায় ইতি সরকার ও পপির সহযোগিতায় সেখানে নিয়ে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ করে। এরপর থেকে তাকে হুমকির মাধ্যমে একইভাবে ধর্ষণ করে লম্পট শামীম। এক পর্যায়ে সে অসুস্থ হয়ে পড়লে শামীমের কথায় আর রাজি হয়নি। গত ২৬ মার্চ শামীম তাকে আবারও ওই বাসায় নিয়ে যেতে চায়। এতে সে রাজি না হলে ধর্ষণের ভিডিও বিভিন্ন মোবাইল ও যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেয়। এতে ওই ছাত্রী মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়ে। এক পর্যায়ে আত্মহত্যার প্রস্তুতি নিলে তার পিতা-মাতা রক্ষা করে থানায় এসে মামলা করলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। এদিকে আসামি গ্রেফতার করায় পুলিশকে সাধুবাদ জানিয়েছেন এলাকাবাসী। এদিকে শামীম পুলিশের কাছে ঘটনার কথা স্বীকার করেছে। গতকাল শনিবার বিকালে শামীম কে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। এসআই মমিনুল ইসলাম জানান, শামীমকে আটক করা হয়েছে। অন্যদের ধরতেও অভিযান অব্যাহত আছে।

Facebook Comments Box
More News Of This Category

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২২ দৈনিক আমার বিশ্বনাথ
Theme Customized By Shakil IT Park